সাবধান! ভাত খাবার পর এই সাতটি কাজের ক্ষতি না জেনেই করছেন.? মরন ডেকে আনছেন তবে!

প্রতিবেদনটির শিরোনাম পড়ে এতো ঘাবড়ে যাওয়ার কিছু হয়নি।আপনি এখনি মরে যাচ্ছেন না,হয়তো নিম্নলিখিত ৭টি অভ্যাস আপনি প্রাত্যহিক জীবনে ভাত খাওয়ার পর করেই থাকেন।তাই আসল সত্যটা জেনে নিন আর পরের বার থেকে সর্তক থাকুন।

১)অনেকেরই অভ্যাস আছে ভাত খাওয়ার পর ধূমপান করার।সারাদিন বেশ কয়েকটা সিগারেট খেলে যতটা ক্ষতি করে,তার চেয়ে বেশি করে খাওয়ার পরপর খেলে।খাওয়ার পর ধূমপান করেছেন তো মরেছেন। ভাত খাবার পর একটা সিগারেট খাওয়া আর সার্বিকভাবে দশটা সিগারেট খাওয়া ক্ষতির দিক দিয়ে সমান অর্থ বহন করে।যারা নিয়মিত ধূমপান করে তারা সকলেই জানে যে দুপুরে ভাত খাওয়ার পর সিগারেট খেলেই কেমন ধরনের নেশার ফিলিংস আসে,আর যত বেশি করে নেশার ফিলিংস ততো বেশি ক্ষতি।

২)অনেকের অভ্যাস আছে দুপুরে ভাত খাওয়ার পরপরই ফল খাওয়ার।এই অভ্যাসটি সত্তর ত্যাগ করা উচিত।কারণ গ্যাস ফর্ম করতে পারে। এই গ্যাস থেকে আস্তে আস্তে অনেক বড় পেটের রোগ বা হঠাৎই ঘোটে যাওয়া কোনো দুর্ঘটনাও হতে পারে।খাবার খাওয়ার এক থেকে দুই ঘন্টা পর , কিংবা এক ঘন্টা আগে ফল খাবেন।

৩)৭০-৮০% বাঙালির মধ্যেই চা খাওয়ার প্রবণতাটা রয়েছে।দিনে সেটা বহুবার ও হয়ে যায় আর একটা নেশা স্বরূপ।তাই এতো বেশি চা খাবেননা।চায়ের মধ্যে প্রচুর পরিমানে টেনিক এসিড থাকে যা খাদ্যের প্রোটিনের পরিমাণকে ১০০ গুণ বাড়িয়ে তুলে যার ফলে খাবার হজম হতে স্বাভাবিকের চেয়ে অনেক বেশী সময় লাগে।

৪)খাওয়ার পর সঙ্গে সঙ্গেই হাঁটা চলা করবেননা!অনেকেই বলে থাকেন যে , খাবার পর ১০০ কদম হাটা মানে আয়ু ১০০ দিন বাড়িয়ে ফেলা! কথাটি সত্যি হলেও পুরপুরি সত্যতা যাচাই করুন আগে। খাওয়ার পর হাঁটা শরীরের পক্ষে ভালো হলেও শেষ করেই তাৎক্ষণিকভাবে নয় । কারণ এর ফলে আমাদের হজম ক্ষমতা বা ডাইজেস্টভ সিস্টেম খাবার থেকে প্রয়োজনীয় পুষ্টি শোষনে অক্ষম হয়ে পড়ে।

৫)দুপুরে ভাত খাওয়ার পর স্নান করবেননা! ভাত খেয়ে উঠেই স্নান করলে বিজ্ঞানীদের মতে শরীরের রক্ত সঞ্চালন মাত্রা বেড়ে যায়!ফলে পাকস্থলির চারপাশের রক্তের পরিমাণ কমে যেতে পারে যা শরীরের পরিপাক তন্ত্রকে দুর্বল করে ফেলবে , এইভাবেই ধীরেধীরে চলতে থাকলে খাদ্য হজম হতে স্বাভাবিকের থেকে অনেক বেশি সময় লাগবে।

৬)ঘুমাতে যাবেননা! আজ্ঞে হ্যা ঠিকই পড়লেন। কথাতেই আছে “ভাত-ঘুম”,আর আরাম প্রিয় বাঙালি তা অক্ষরে অক্ষরে পালন করে। দুপুরে ভাত খেয়ে বিকাল অবধি একটা ঘুম চাইই চাই। এটা যেন সবার রুটিনে বাঁধা। কিন্তু এই বদভ্যাসটি আমাদের খুব তাড়াতাড়ি বর্জন করে ফেলা দরকার।কারণ এতে খাদ্য ভালোভাবে হজম হয় না। ফলে গ্যাস্ট্রিক এবং ইন্টেস্টাইনে ইনফেকশন হয়!

৭)খাবার পরপরই বেল্ট কিংবা প্যান্টের কোমর লুস করবেননা। লুস রাখলে ঘটে যেতে পারে বহু বড় বিপদ। এর ফলে অতি সহজেই ইন্টেসটাইন(পাকস্থলি থেকে মলদ্বার পর্যন্ত খাদ্যনালীর নিম্নাংশ ) বেকে যেতে পারে, পেঁচিয়ে যেতে পারে অথবা ব্লকও হয়ে যেতে পারে । যাকে বলেইন্টেস্টাইনাল অবস্ট্রাকশন।তাই পরের বার থেকে খেয়াল রাখুন।

উপরের প্রতিবেদনটিতে উল্লেখ করা ৭টি পয়েন্ট পড়ে এবার থেকে প্রতিদিনের জীবনে পালন করা শুরু করুন। আশা করা যেতে পারে আগামীদিনে কোনো বড় সমস্যার সম্মুখীন হবেননা।

পোষ্টটা কেমন লেগেছে সংক্ষেপে কমেন্টেস করে জানাবেন৷ T= (Thanks) V= (Very good) E= (Excellent) আপনাদের কমেন্ট দেখলে আমরা ভালো পোষ্ট দিতে উৎসাহ পাই।

Check Also

গুড় ও ছোলার অসাধারন এই ৮টি গুন সম্পর্কে জানলে আজ থেকেই খাবেন আপনিও..

সকালে ব্রেকফাস্টে গুড় ও ছোলা খাওয়ার কথা শহরের মানুষরা ভাবতেও পারেন না। কিন্তু শরীরের জন্য ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *