Wednesday , 25 November 2020
[cvct-advance id=20554]

সাবধান! বাজারে বিক্রি হচ্ছে মানুষ খেকো মাছ, খেলেই মারণরোগের শিকার!

বর্তমানে বাজারে একধরনের মাছ খুবই জনপ্রিয় যাকে রূপচাঁদ বা চাঁদা মাছ বলে ডাকা হয়।এর দাম অনেকটা সস্তা হওয়ায় মানুষ এটিকে খুবই পছন্দ করছেন।তবে এই মাছের ইতিহাস মোটেই সন্তোষজনক নয় কারণ এরা মানুষখেকো পিরানহা প্রজাতির মাছ।আমরা সবাই জানি যে পিরানহা মাছ যেখানে থাকে সেখানে যদি কেউ নামে তাহলে একটা মানুষকে আত্মসাৎ করতে ওই মাছের মাত্র ১৫ মিনিট সময় লাগে।

আরও পড়ুন : চাকরি পার্থীদের জন্য সুখবর, প্রচুর কর্মী নিয়োগ করছে রাজ্য সরকার ! এই মাসেই আবদনের শেষ তারিখ, তাড়াতাড়ি করুন
অনেক মৎস্যচাষীরা এটিকে চাষ করে থাকেন পুকুরে এবং ধরার সময় তীব্র বিষ প্রয়োগ করে এই মাছকে জল থেকে তোলেন।এই মাছ চেনার সহজ উপায় হল এদের সামনের দাঁত হুবহু মানুষের মতো।অনেকেই জানেন না এই মাছ খেলে ফুসফুসের ক্যান্সার, ব্রেন ক্যান্সার এবং স্ট্রোকের মতো মারণরোগের শিকার হতে পারে মানুষ।

সাধারণ মানুষকে বোকা বানিয়ে এই মাছের ব্যবসা রমরমিয়ে চালাচ্ছেন কিছু মৎসজীবী।এটি বিক্রি পুরোপুরি বেআইনি, তাই কোনো ব্যবসায়ীকে এই মাছ বিক্রি করতে দেখলে দ্রুত আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

মুরগির মাংসে করোনা ভাইরাস আছে? কি জানালো গবেষকরা? জেনেনিন এক্ষুনি

এদিন FSSAI প্রধান জি এস জি অয়নগর জানিয়েছেন, মুরগি, মাটন অথবা কোনো সামুদ্রিক প্রানীর মাংস থেকে ছড়িয়েছে বলে প্রমাণ পাওয়া যায়নি। এই বক্তব্য সম্পুর্ন ভিত্তিহীন বলে দাবী করেছেন তিনি। তবে এটি বৈজ্ঞানিক গবেষণা করে জানা যাবে কিভাবে এমন ভাইরাসের উৎপত্তি হল, মূলত এই করোনা ভাইরাস তাপমাত্রা যুক্ত অঞ্চলে কোনোমতে বেঁচে থাকতে পারে না। তাই গ্রীষ্মপ্রধান দেশে এই বিষয় নিয়ে ভয় পাওয়ার কারন কম বলে জানিয়েছে FSSAI প্রধান।

আরও পড়ুন : মোটা হয়ে যাচ্ছেন? পেটের মেদ ঝরাতে চান? মুক্তি পেতে আজকেই খান এই পানীয়টি
ভারত একটি গ্রীষ্মমন্ডলীয় দেশ তাই গ্রীষ্মকালে তাপমাত্রা সবসময় বেশি থাকে। যখন এই তাপমাত্রা ৩৫-৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে অতিক্রম করবে তখন আর ভাইরাসটি কোনোমতেই টিকে থাকতে সক্ষম হবে না। তিনি এবিষয়ে বলেছেন, ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা করতে যাতে তাপমাত্রা তাড়াতাড়ি বেড়ে শীত বিদায় নেয়।

এখনো পর্যন্ত ভারতে করোনা ভাইরাস সংক্রমণে ২৯ জন আক্রান্ত হয়েছেন। তবে FSSAI -এর প্রধান জানিয়েছেন, মুরগি, মাটন এবং সামুদ্রিক খাবার খাওয়ার ফলে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়তে পারে এমন আশঙ্কা সম্পুর্ন ভুল এবং বৈজ্ঞানিক ভিত্তিহীন।

আরও পড়ুন : মোদী সরকারের চমকপ্রদ যোজনা! প্রত্যেক মাসে পাওয়া যাবে ৩০০০ টাকা! দেখুন কারা কারা পাবেন এই সুবিধা
মানুষকে সাবধানতা অবলম্বন করার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, করোনা ভাইরাসটি অন্যান্য ভাইরাসের মতোনই রোগের কারন দেখা যায় তাই এর ভ্যাকসিন তৈরি করা জটিলতার বিষয়। সরকার ভাইরাসটি চেনার আলাদা কোনো সূত্র বের করার জন্য সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালাচ্ছে।

গত ২ মার্চ, পোল্ট্রি ব্যয়সায়ীরা সরকারের কাছে ত্রাণ প্যাকেজ দাবি করে যে, মানুষের মনে ভুল ধারনা মুরগি খেলে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হতে পারে এমন জাল সংবাদের কারনে তাদের এক মাসে প্রায় ১,৭৫০ কোটি টাকার লোকসান হয়েছে।অল ইন্ডিয়া পোল্ট্রি ব্রিডার্স অ্যাসোসিয়েশন মন্তক বলেছিলেন, মুরগির দাম প্রতি কেজিতে এখন ১০-৩০ টাকায় নেমে গেছে এবং মুরগির চাহিদা কমে যাওয়ার গড় উৎপাদন ব্যয় ৮০ টাকা করে প্রতি কেজিতে খরচ হচ্ছে।

আপনার কাছে পোষ্ট টি কেমন লেগেছে সংক্ষেপে কমেন্টেস করে জানাবেন ৷ T=(Thanks) V= (Very good) E= (Excellent) আপনাদের কমেন্ট দেখলে আরো ভালো ভালো পোষ্ট দিতে উৎসাহ পাই।

Check Also

বাড়িতে মা না থাকায় ব’ন্ধু’কে নিয়ে ঘরে ম-দ খাচ্ছে ছেলে, হটাৎ মা এসে দেখে উ-দু-ম পে-টা-লো ছেলে ও তার বন্ধুকে, তু’মু’ল ভাইরাল ভিডিও..

আমাদের মধ্যে অনেকেই স্বাস্থ্যের প্রতি যথেষ্ট সচেতন থাকেন । অর্থাৎ নিজের স্বাস্থ্য এবং শরীর সম্পর্কে ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You cannot copy content of this page