Monday , 1 June 2020

শোওয়ার আগে স্রেফ নুন আর চিনি। ৫ মিনিটে গভীর ঘুম আসবে তাতেই

খাবারকে সুস্বাদু করতে নুন আর চিনি একেবারে অপরিহার্য। কিন্তু স্বাস্থ্যসচেতন মানুষজন এই দু’টি উপাদানের অতিরিক্ত সেবন এড়িয়েই চলেন। ডাক্তাররাও বলেন, নুন এবং চিনি অতি মাত্রায় শরীরে প্রবেশ করলে, তার নানাবিধ ক্ষতিকর প্রভাব পড়ে। কিন্তু মিনেসোটা ইনস্টিটিউট অফ অলটারনেটিভ মেডিসিনের গবেষকরা জানাচ্ছেন, নুন আর চিনির পরিমিত সেবন নানা স্বাস্থ্য-সমস্যা থেকে মুক্তিও দিতে পারে। বিশেষত, অনিদ্রায় যাঁরা ভোগেন, তাঁরা বিশেষ উপকার পেতে পারেন নুন ও চিনির বিধিসম্মত সেবনে। কী রকম?

একটি সাম্প্রতিক হেলথ জার্নালে গবেষকরা দাবি করেছেন, রোজ রাত্রে পরিমাণমতো নুন ও চিনি খেলে দ্রুত ঘুম আসবে, এবং গভীর হবে ঘুম। এই উপকার পাওয়ার জন্য প্রথমে তৈরি করে নিতে হবে একটি মিশ্রণ।

কী কী লাগবে এই মিশ্রণ তৈরি করতে? লাগবে সামান্য দু’টো জিনিস— ৫ চা চামচ লাল চিনি বা ব্রাউন সুগার, এবং ১ চা চামচ নুন। এই দু’টি উপাদান ভাল করে মিশিয়ে একটি কাচের জারে বা অন্য কোনও পাত্রে রেখে দিন। ব্যস, আপনার প্রাকৃতিক ঘুমের ওষুধ রেডি।

এ বার জেনে নিন, এই মিশ্রণের ব্যবহার বিধি। রোজ রাত্রে শুতে যাওয়ার আধ ঘন্টাখানেক আগে মিশ্রণের এক চা চামচ পরিমাণ তুলে নিয়ে জিভের তলায় রাখুন। চিবোবেন না, বা জল দিয়ে গিলে নেবেন না। বরং আস্তে আস্তে মিশ্রণের উপাদানগুলিকে মুখের মধ্যে গলে যেতে দিন।

কী উপকার পাওয়া যাবে নুন-চিনির এই মিশ্রণ থেকে? আসুন, জেনে নেওয়া যাক—

১. গবেষকদের দাবি, এই মিশ্রণ প্রধানত ঘুমের উন্নতি ঘটায়। মিশ্রণটি মুখে দিয়ে চোখ বুজিয়ে শুয়ে থাকলে কয়েক মিনিটের মধ্যেই গভীর ঘুমে তলিয়ে যাবেন আপনি।

২. মাথা ব্যখা কমানোর ক্ষেত্রেও খুব দ্রুত কাজ করে এই মিশ্রণ।

৩. তা ছাড়া রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার সামগ্রিক উন্নতি ঘটে এই মিশ্রণের প্রভাবে। ফলে শীতকালে নুন-চিনির এই মিশ্রণের নিয়মিত সেবন সর্দি-কাশিকে দূরে রাখে।

Check Also

ব্যায়াম ছাড়াই ঘরোয়া উপায়ে পেটের মেদ কমানোর সহজ কৌশল

পে’টে মেদ বা চর্বি হলে চলা-ফেরায় যেমন ক’ষ্ট হয়, তেমনি ন’ষ্ট হয় সৌন্দর্যও। অনেকে আছেন ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!