Sunday , 16 June 2019

লাস্ট বেঞ্চ থেকে প্রথমের সারিতে, ৪বার ব্যর্থ হওয়ার পর সফল আইপিএস

প্রথাগত সব নিয়মকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে তিনি জীবন যুদ্ধে জিতেছেন। তথাকথিত লাস্ট বেঞ্চের ছাত্র হয়েও সসম্মানে উত্তীর্ণ হয়েছেন আইপিএস পরীক্ষায়। তিনি মিঠুন কুমার জিকে। যার ছেলে বেলা কেটেছে চরম ব্যর্থতায়।বহু কষ্টে, কম নম্বর নিয়ে স্কুল আর কলেজের গণ্ডী পেরিয়েছেন মিঠুন। উজ্জ্বল তো নয়ই, ছাত্র হিসেবে সাধারণের মধ্যেও নজর কাড়েননি কখনও। এহেন ছাত্র যে ভবিষত্যে কিছু করবে, এমন আশা তাঁর শিক্ষকেরা তো দূর বাড়ির লোকেরাও ভাবেনি। তবে দায়িত্ব অনেক।

পরিবারের বড় ছেলে। তাই একটা চাকরির খুব দরকার। অনেক কষ্টে সফটওয়্যার সেক্টরে একটা চাকরি জোটান। তারপর যা হয়। ব্যস্ত হয়ে পড়েন দশটা-পাঁচটার জীবনে এই চাকরি করে কোনওদিন তৃপ্তি পান নি মিঠুন। মনে প্রাণে চাইতেন অন্য কিছু করতে। কিন্তু হয়ে ওঠেনি। এই ভাবেই চলল তিন বছর। তারপর ছোট ভাই সংসারের হাল ধরতেই চাকরি ছাড়লেন। এর পরের গল্প স্বপ্নের মতো। বাবা চেয়েছিলেন ছেলে পুলিশ কর্মী হোক। নিজেও সেই পেশার প্রতি অদ্ভুত টান অনুভব করতেন। বাবার পরামর্শে পরীক্ষায় বসলেন মিঠুন।

Check Also

ছেলে বেঁচে উঠবে আশ্বাস তান্ত্রিকের, কবরের পাশে বাবা, তারপর যা হল

এক বাবার গল্প অবাক করে দিয়েছে অন্ধ্রপ্রদেশ সহ গোটা দেশকে। মৃত ছেলেক ফিরে পাওয়ার জন্য ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *