Monday , 1 June 2020

রবিবার ভুলে করেও তুলসীগাছে প্রদীপ দেখাবেন না তার কারন জেনে নিন

তুলসী গাছ, আমাদের প্রতিটা বাঙালি বাড়িতে যার অবস্থান অনস্বীকার্য। এমন কোন বাঙালি বাড়ি পাবেন না সেখানে তুলসী মন্দির নেই, আর মন্দিরে তুলসী গাছ। তুলসীপাতা যেমন একদিকে ঠাকুরের পুজায় লাগে, তেমনই তুলসীপাতা নানা রকম রোগের মহৌষধি। সর্দি, কাশি হলে তুলসীপাতার রস খুবই উপকারী।

প্রতি সন্ধ্যায় তুলসী তলায় ধুপ ও বাতি দেখানো আমাদের হিন্দু না বোনেদের একটা রীতি। হিন্দুরা এই তুলসী গাছকে খুবই উপকারী মনে করেন। সে শাস্ত্রীয় হোক বা আয়ুর্বেদিক গুন, তুলসী গাছের মাহাত্ম্য প্রচুর। কিন্তু আপনি কি জানেন বাড়িতে তুলসী গাছ রাখলে কিছু নিয়ম মেনে চলতে হয়? তেমনই তুলসী গাছের এমন কিছু নিয়ম আছে, যা রবিবারে করা উচিত নয়। আজ আমরা এই প্রতিবেদনে সেই নিয়ম গুলিই জানবো, যে রবিবারে তুলসী গাছের সাথে কি কি করা যাবে না।

১। রবিবারে তুলসী গাছের পাতা ছিড়তে নেই। বিষ্ণু পুরান অনুযায়ী একাদশী, দ্বাদশী, সূর্যগ্রহণ, চন্দ্রগ্রহণ, বা সন্ধ্যা বেলায় কখনোই তুলসী পাতা ছেঁড়া উচিত নয়। কারণ মনে করা হয় যে তুলসী মা একাদশীর ব্রত পালন করেন রবিবার। তাই রবিবার তুলসীপাতা ছিড়লে তাকে বিরক্ত করা হয়। তাই রবিবারে কখনোই তুলসীপাতা ছেঁড়া উচিত নয়। নয়তো আপনার জীবনে নেমে আসতে পারে দুঃখ ও দারিদ্র্যতা।

২। রবিবারে তুলসী তলায় প্রদীপ ও দেখাতে নেই। কারণ জানেন? আসুন জেনে নিন কি জন্য রবিবারে তুলসী পাতা না ছেঁড়ার পাশাপাশি রবিবারে তুলসী তলায় প্রদীপ কেনো দেখাতে নেই তার কারণ। বিষ্ণু পুরাণে বলা হয় যে, রবি বারে তুলসী তলায় প্রদীপ দেখালে নাকি মা লক্ষ্মী অপমানিত হন। শাস্ত্রে বলা হয় যে, রবিবার নাকি ভগবান বিষ্ণুর বার। তাই রবিবারে প্রদীপ দেখালে ভগবান বিষ্ণু কেই দেখানো উচিত বলে মনে করা হয়।

তাই রবিবার ভগবান বিষ্ণুর পরিবর্তে যদি তুলসীতলায় প্রদীপ দেখানো হয় তাহলে মাতা লক্ষ্মী ক্রোধিত হন, এবং সেই বাড়ি থেকে য়িনি বিদায় নেন, এমনটাই বলা আছে শাস্ত্রে। তাই রবিবার ভুলেও কখনো তুলসী তলায় প্রদীপ দেখাবেন না।

৩। উপরিউক্ত দুটি নিয়মই শুধু নয়, চান না করে কখনোই তুলসীগাছে হাত দেবেন না। কারণ তাতে করে তুলসী গাছ বাসী হয়ে যায় বলে মনে করা হয়। ১১ দিন পর্যন্ত তুলসীপাতা বাসি হয় না বলে মনে করা হয়। এতে জল ছিটিয়ে পুনরায় ভগবানের উদ্দেশ্যে নিবেদন করা যেতে পারে।

Check Also

কলকাতার লেক কালীবাড়ির ইতিহাস,যেখানে পঞ্চমুন্ডির আসনে বিরাজ করছেন মা!!

লেক কালীবাড়ি হল কলকাতার রবীন্দ্র সরোবরের (ঢাকুরিয়া লেক) ধারে সাউদার্ন অ্যাভিনিউ-এ অবস্থিত একটি কালীমন্দির। ১৯৪৯ ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!