মুখে দুর্গন্ধ? এ সব সহজ উপায়েই দূর করুন সমস্যা

অফিসের মিটিং হোক বা বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা— সকলের মাঝে কথা বলতে গিয়ে অনেকেই সচেতন থাকেন, মুখের দুর্গন্ধ প্রকাশ্যে চলে এল না তো? সকালে ভাল ভাবে ব্রাশের পরেও দিন যত এগোয়, ততই এই সমস্যা মাথাচাড়া দেয়।

সাধারণত মুখের দুর্গন্ধ দূর করতে দু’বার ব্রাশ করা, নামী সংস্থার মাউথ জেল ব্যবহার, ঘন ঘন চিউইং গাম চিবোনো— এ সব সচেতনতা অনেকেই নিয়ে থাকেন। তবে তার পরেও এই সমস্যা নাস্তানাবুদ করে ছাড়ে অনেককেই।

চিকিৎসকদের মতে, লিভারের কোনও সমস্যা, অতিরিক্ত মশলাদার খাবার, মুখের প্রতিটি প্রান্ত ভাল করে পরিষ্কার না হওয়া ইত্যাদি কারণেও শ্বাসে দুর্গন্ধ আসে। দীর্ঘ দিন এমন সমস্যায় ভুগলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে। তবে ঘরোয়া দু’টি উপায় মেনে চললেও এই সমস্যাকে অনেকটা কব্জা করা যায়।এ সব কৌশল অবলম্বন করলে অফিস মিটিং হোক বা বন্ধুদের আড্ডা— নিঃসঙ্কোচে মেলামেশা করতে পারবেন আপনিও।

দেখে নিন শ্বাসের দুর্গন্ধ দূর করার সহজ কিছু ঘরোয়া উপায়।

একটি পাত্রে বেকিং সোডা নিন। তাতে যোগ করুন গরম জল। বেকিং সোডা ভাল করে জলে গুলে গেলে সেই জল দিয়ে দিনের মধ্যে বার কয়েক কুলকুচি করুন। প্রতি দিন এই অভ্যাস রপ্ত করতে পারলে শ্বাসের দুর্গন্ধ থেকে সহজেই মুক্তি মেলে।

সাধারণ লাল চা বা কফি খাওয়ার অভ্যাস সরান। বরং লবঙ্গ দিয়ে ফুটিয়ে নিন গ্রিন টি। সেই চা-ই খান, গ্রিন টি-র অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট মুখএর ক্ষতিকর ব্যাকটিরিয়াকে ধ্বংস করে। লবঙ্গের গন্ধ শ্বাসে সতেজ ভাব আনে।

অতিরিক্ত জাঙ্ক ফুডেও শ্বাসের দুর্গন্ধ আসে।

এই দুই ঘরোয়া উপায় ছাড়াও শ্বাসের গন্ধ দূর করতে কয়েকটা নিয়ম মেনে চলুন রোজ।

কেবল দাঁতই নয়, ব্রাশ করুন জিভও।

মশলাদার খাবার, জাঙ্ক ফুড এ সব শরীরে টক্সিন বাড়ায়। তই এড়িয়ে চলুন এ সব।

টক দই রাখুন খাওয়ার পাতে। শরীরের টক্সিন দূর করতে টক দইয়ের ভূমিকা অনস্বীকার্য।

পোষ্টটা কেমন লেগেছে সংক্ষেপে কমেন্টেস করে জানাবেন৷ T= (Thanks) V= (Very good) E= (Excellent) আপনাদের কমেন্ট দেখলে আমরা ভালো পোষ্ট দিতে উৎসাহ পাই।

Check Also

এক গ্রামে ছিলো এক মাখন বিক্রেতা, তিনি নিয়ম করে রুটিওয়ালার কাছে যেতেন!

সে অনেক দিন আগের কথা। এক গ্রামে ছিলো একজন মাখন বিক্রেতা। তিনি তার গ্রামেরই এক ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *