Sunday , 16 June 2019

মা বাচ্চাটির নাকের ভিতর কিছু অদ্ভুত কালো জিনিস দেখতে পেলো, তারপর যা হল…

সেই দিনটি অন্য দিনের মতো ছিল যখন মা, মেগান বাডেন তার বাচ্চা ছেলে জিমিকে খাওয়ানো শুরু করছিলেন। ছেলেটি বিছানায় এমনভাবে শুয়ে ছিল যে তার মা তার নাকের ভেতরটা অনেকটাই দেখতে পাচ্ছিলেন। এটা ছিল অনিচ্ছাকৃত, কিন্তু মেগান জিমির নাকে এমন কিছু দেখতে পেলেন যা তাদের জীবন সম্পূর্ণরূপে পরিবর্তন করে দেয়।

মা তার সন্তানের নাক মুছে এবং ভিতরে লক্ষ্য করে কিছু কালো দাগ খুঁজে পান। অন্য মায়ের মতো তিনি চিন্তা করতে লাগলেন এবং সম্ভাব্য উত্তরের জন্য অপেক্ষা করছিলেন। আগের রাতে এমন কিছু ঘটেছে, হঠাৎ সেটা তার মনে আঘাত করে।

নিউ জার্সিতে বসবাসকারী মেগান রুমে দুটি পূর্ণ আকারের সুগন্ধি মোমবাতি ছিল, যা প্রায় ছয় ঘণ্টা ধরে পুরেছিল। মোমবাতি কি করল? এই সেই গল্প যা আমাদের সবাইকে জানার প্রয়োজন। যখন তিনি মোমবাতি কিনেছিলেন, তখন আমাদের অধিকাংশ মত সে নিচে উল্লিখিত সাবধানবাণী উপেক্ষা করেছিল; সেখান থেকে সব সমস্যা শুরু।

সাবধানবাণী : “একবারে তিন ঘণ্টার বেশি সময় ধরে পোড়াবেন না। বেশি পরিমাণে মোমবাতিটি পোড়ালে বিষাক্ত পদার্থ, যা কালি তৈরি করে।”

পরিবেশগত স্বাস্থ্য এবং নিরাপত্তা পরামর্শকারী সংস্থা ক্যাশিন এবং অ্যাসোসিয়েটস অনুযায়ী: “এই ক্ষুদ্র কণার সাহায্যে করোনারি হৃদরোগ, হাঁপানি, ব্রংকাইটিস এবং অন্যান্য শ্বাসের রোগ হতে পারে। কণিকার এক্সপোজার প্রতি বছর আমেরিকার প্রায় ২০,০০০ মানুষের অকাল মৃত্যুর কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।”

Check Also

ছেলে বেঁচে উঠবে আশ্বাস তান্ত্রিকের, কবরের পাশে বাবা, তারপর যা হল

এক বাবার গল্প অবাক করে দিয়েছে অন্ধ্রপ্রদেশ সহ গোটা দেশকে। মৃত ছেলেক ফিরে পাওয়ার জন্য ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *