ভয়াবহ বিপদের মুখে শহর কলকাতা!

বর্তমানে বিশ্ব উষ্ণায়নের ফলে গোটা বিশ্ব এখনবিপদসঙ্কুল। তাপমাত্রার পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে মানুষ স্বীকার হচ্ছেনানারকমের ব্যাধিতে। এবার সেই বিশ্বউষ্ণায়নের কবলে পড়ে বিপদের মুখে শহর কলকাতা।সম্প্রতি জাতিপুঞ্জের ইন্টারগভর্নমেন্টার প্যানেল অন ক্লাইমেট চেঞ্জ-এর একটিসমীক্ষার মাধ্যমে জানা গিয়েছে কিছুদিনের মধ্যে বিশ্ব উষ্ণায়নের দারুন প্রভাব পড়তেচলেছে ভারতীয় উপমহাদেশে। যার ফলে ভয়ঙ্কর তাপপ্রবাহ ছড়িয়ে পড়তে পারে কলকাতা ও করাচি ও ভারতীয় উপমহাদেশের বিস্তীর্ণঅঞ্চলে। ফলে ভারতীয় উপমহাদেশের তাপমাত্রাতেও এক বড়সড় বদল ঘটতে চলেছে বলে জানাগিয়েছে।

প্রসঙ্গত,2015 সালে ভয়াবহ তাপপ্রবাহের জেরে আড়াই হাজার মানুষের মৃত্যু হয়। আইপিসিসিরসমীক্ষায় আবারও সেই ভয়াবহ বিপর্যয় ফিরে আসার সম্ভাবনাও দেখা দিয়েছে বলে খবর।আইপিসিসির রিপোর্ট নিয়ে চলতি ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত জলবায়ু সম্মেলনে আলোচনা হওয়ার কথা।

বর্তমানে যে হারে তাপমাত্রা বৃদ্ধি পাচ্ছে তাতে গোটা বিশ্ব বিপদের মুখে কিন্তু আইপিসিসিসমীক্ষা বলছে 2030 সাল থেকে 2052 সালের মধ্যে সেই তাপমা্রা বৃদ্ধির হার 1.5 ডিগ্রিসেলসিয়াসে পৌঁছাবে। ফলে খরা, বন্যা বা ভয়াবহ প্রাকৃতি দুর্যোগ বেড়ে যাবে। পাল্টে যাবে উপমহাদেশের মানচিত্র। যথাযথ ব্যবস্থা না নিলে জলবায়ুর এই পরিবর্তনগোটা উপমহাদেশকে গ্রাস করবে। আর কলকাতা সহকরাচি শহরে যার ভালোমতো প্রভাব পড়বে বলে জানিয়েছে আইপিসিসি।

বিশ্বউষ্ণায়নের ফলে পৃথিবার তাপমাত্রা বেড়ে যাওয়া মরু অঞ্চলের বরফ গলছে এরফলে সমুদ্রেরজলস্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে। প্রতিবছর বন্যায় ভেসে যাচ্ছে রাজ্যের পর রাজ্য। তাই জলবায়ুরপরিবর্তন হলে এধরনের ঘটনা নিত্যনৈমিত্তিক ব্যাপার হয়ে দাঁড়াবে বলেই মনে করছেআইপিসিসি কর্তৃপক্ষ।

পোষ্টটা কেমন লেগেছে সংক্ষেপে কমেন্টেস করে জানাবেন৷ T= (Thanks) V= (Very good) E= (Excellent) আপনাদের কমেন্ট দেখলে আমরা ভালো পোষ্ট দিতে উৎসাহ পাই।

Check Also

প্রায়ই গলা জ্বলে, চোঁয়া ঢেকুর ওঠে? এ সব উপায়ে ওষুধ ছাড়াই আয়ত্তে আনুন এই সমস্যা

সামান্য মশলাজাতীয় খাবার খেলেই গলা জ্বালা, চোঁয়া ঢেকুর, আর তার পরেই মুঠো মুঠো গ্যাস-অম্বলের ওষুধ ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *