Saturday , 19 September 2020
[cvct-advance id=20554]

বিয়ে করতে আসা পাত্রকে বিয়েবাড়িতেই কৌশলে গ্রেফতার পুলিশের

বরাবাজারের এক ব্যবসায়ী মেয়ের বিয়ে ঠিক করেছিলেন বামুনপাড়ার ভৈরব তলার দেবদীপ পালের সঙ্গে। দেবদীপ দুবাই এ মোটা মাইনের চাকুরে। সম্প্রতি ৮ই মার্চ ঠিক ছিল বিয়ের দিন। মেয়ের বাবা নিমন্ত্রণ পর্ব সেরে ফেলেছেন যথারীতি। কেনাকাটাও হয়ে এসেছিল প্রায়। এরই মধ্যে ঘটে বিপত্তি। উত্তর চব্বিশ পরগণার এক যুবতী তার দাদাকে নিয়ে হাজির হন পাত্রীর বাড়িতে। জানান,দেবদীপের সঙ্গে তার দীর্ঘদিনের সম্পর্ক। সম্প্রতি সে জানতে পেরে যায় বরাবাজারে বিয়ে করছেন দেবদীপ।

দেবদীপকে এ নিয়ে যুবতী জিজ্ঞেস করলে সে জানায়,বাড়ির চাপে বিয়েতে রাজি হয়েছে। কিছুদিনের মধ্যেই ডিভোর্স দিয়ে দেবে। এর ভিত্তিতে থানায় অভিযোগ জানায় পাত্রীর পরিবার। অবশেষে,বিয়ে করতে এলে পাত্রকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ইছাপুরের এই যুবতীর দাবী নিজের জীবন নষ্ট হয়েছে তাই আর একটি মেয়ের জীবন নষ্ট হোক তা চাইনি। পুলিশের কাছে প্রমান স্বরূপ দেবদীপের সঙ্গে কথাবার্তার কিছু রেকর্ড ও ছবি জমা দিয়েছে ওই যুবতী।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে একের পর এক বোমা ফাটালেন মুকুল রায়, পড়ুন বিস্তারিত

২০১৫ সালে সুরেশ প্রভু রেলমন্ত্রী থাকাকালীন বিজেপি শ্রমিক সংগঠনের নেতা বাবান ঘোষ সন্তু বন্দ্যোপাধ্যায় নামে এক ব্যক্তির থেকে টাকা নিয়েছিল। সে বলেছিল পূর্ব রেল কমিটির স্থায়ী সদস্য করে দেবে। পরে জানা যায় সবটাই আসলে ভাঁওতাবাজি। আর এটা বুঝেই সরশুনা থানায় অভিযোগ দায়ের করে সন্তু বাবু।

সম্প্রতি পাটুলির বাড়ি থেকে বাবান ঘোষকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ওই মামলায় নাম আছে মুকুল রায়ের ও। তিনি দফায় দফায় ৭০ লক্ষ টাকা ঘুষ নিয়েছেন ভলে অভিযোগ। সন্তু বাবু দাবি করেছেন সেই সময়ে তাকে বিভিন্ন নেতাদের সই করা নানারকম কাগজ ও দেওয়া হয়েছিল যে দেখে তার ঘটনাটা বিশ্বাস হয়েছিল।

বুধবার আগাম জামিনের জন্য আবেদন জানান মুকুল। অন্যদিকে বাবান ঘোষকে পুলিশ নিজের হেফাজতে নিতে চাইছে পুলিশ অন্যদিকে মুকুলকেও তারা গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছে। এই ঘটনার বিষয়ে মুকুল বলেন, “আমার নামে এরকম ২৯টি মামলা রয়েছে৷ এরমধ্যে ১৫-১৬টি মামলাতেই পরে অভিযোগকারী জানিয়েছেন, তাঁকে চাপ দিয়ে অভিযোগ করানো হয়েছে৷ তৃণমূল সরকারে ফিরছে না৷ এটা ভেবেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় উদ্বিগ্ন৷ তাই আমার নামে মিথ্যে কেস দেওয়া হচ্ছে৷ “

Check Also

PhD পাস ফল বিক্রেতা তরুণীর ঝরঝরে ইংরেজি লজ্জায় ফেলবে আপনাকে

একজন সবজি বিক্রেতা এই ভাবেই ঝড়ের গতিতে ইংরেজি বলতে পারেন এমনটা আমরা ভেবে উঠতে পারিনা। ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!