Saturday , 12 September 2020
[cvct-advance id=20554]

বিয়ের মাসই বলে দেবে দাম্পত্য জীবনে আপনি কতোটা সুখী আছেন, তাহলে দেখে নিন………..

প্রতিটি মানুষকেই একদিন এ একদিন বিবাহিত জীবনে পা রাখতে হয়। বিবাহিত জীবনে সুখে শান্তিতে ঘর সংসার করার স্বপ্ন সবাই দেখে থাকে।
তবে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে কিছু কিছু কারণে একঘেয়েমি এসে যায় দাম্পত্য সম্পর্কের মধ্যে। যা এক সময় বিচ্ছদের কারণ হয়ে দাঁড়ায়। জ্যোতিষশাস্ত্র মতে মানুষের জীবনে যেমন রাশি চক্রের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা আছে, ঠিক সেরকম আপনি কোন মাসে বিয়ে করেছেন দাম্পত্য জীবনে সুখী হওয়ায় ক্ষেত্রে তারও একটা বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। আসুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক-

১-জানুয়ারি
যে কোনো সালের জানুয়ারি মাসে যারা বিয়ে করেন তাদের দাম্পত্য সম্পর্ক হবে খুব বন্ধুত্বের। নিত্য নতুন চাকচিক্যে ভরে থাকবে আপনার সম্পর্ক। এই মাসে যারা বিয়ে করেন তাদের বিচ্ছেদের সম্ভবনা কম থাকে।

২-ফেব্রুয়ারি
যেকোনো সালের ফেব্রুয়ারি মাসে যারা বিয়ে করেন তাদের দাম্পত্য সম্পর্ক ভীষণ আবেগ প্রবণ হয়। এদের প্রেমের সঙ্গে আবেগ মিশ্রিত থাকে। বিবাহের প্রতিশ্রুতি সারা জীবন ধরে পালন করে এবং এরা নিজের থেকে সঙ্গীর সুখের কথা বেশি চিন্তা করে।

৩-মার্চ
মার্চ মাসে যারা বিয়ে করে তাদের সম্পর্কের মধ্যে প্রচুর টানাপড়েন থাকবে। অহেতুক বা খুব সামান্য কারণে তাদের মধ্যে ঝামেলা সৃষ্টি হতে পারে। সঙ্গীর আচরণ মাঝে মাঝে তাদেরকে ব্যতিব্যস্ত করতে পারে।

৪-এপ্রিল
এপ্রিল মাস বিয়ের জন্য আদর্শ মাস বলে পরিগণিত হয়। এই মাসে যারা বিয়ে করে তাদের মনের মিল হয় দারুণ ও সম্পর্ক হয় মধুর। সুস্থ ও সুন্দর যৌনজীবন উপভোগ করতে পারেন তারা।

৫-মে
মে মাসে যারা বিয়ে করেন তাদের যদি মিল হয় তো খুব ভালো, তা না হলে এদের সম্পর্ক একদম ছাড়াছাড়ির পর্যায়ে গিয়ে দাঁড়ায়। এদের মাঝামাঝি কিছু হয় না। হয় এরা খুব সুখী হয়। না হলে প্রচুর অশান্তি ভোগ করতে হয়।

৬-জুন
জুন মাসে যারা বিয়ে করেন তাদের মধ্যে ভালোবাসা চূড়ান্ত পর্যায় থাকে। এরা যেমন পরস্পরের খেয়াল রাখে, ঠিক তেমন পরিবারের অন্য সদস্যদেরও খেয়াল রাখে। একে অপরের প্রতি বিশ্বাস রেখে চলে।

৭-জুলাই
জুলাই মাসে যারা বিয়ে করেন তাদের মধ্যে ভাবনার প্রচুর মিল হতে দেখা যায়। কী করলে নিজেদের সম্পর্ক আরও উন্নত হতে পারে, সেই চেষ্টায় ব্যস্ত থাকেন তারা।

৮-আগস্ট
আগস্ট মাসে বিবাহিতদের মধ্যে সব সময় খুব একটা মিল হবে না। তবে এরা দাম্পত্য জীবনের খারাপ সময় কাটিয়ে উঠতে দু’জনে মিলে চেষ্টা করে। একে অপরের পছন্দের দিকে নজর দিলে সম্পর্ক মধুর হতে পারে।

৯-সেপ্টেম্বর
এই মাসে যারা বিয়ে করেন তারা সুখে দাম্পত্য জীবন কাটানোর জন্যই যেন বিয়ে করেন। নিজেদের সম্পর্কের ভারসাম্য কীভাবে রক্ষা করতে হয় সেটা তারা খুব ভালো বোঝে। কলহ এদের মধ্যে বিশেষ একটা হয় না বললেই চলে।

১০-অক্টোবর
যেকোনো সালের এই মাসে যারা বিয়ে করেন, তাদের মধ্যে অল্প বিস্তর কলহ থাকে। তবে এরা যৌন জীবন এতো ভালো ভাবে উপভোগ করে যে, সব কলহ চাপা পড়ে যায়। ভালোবাসা না দেখাতে পারলেও সেটা বেশ গভীর থাকে। এরা ফ্যামিলি প্ল্যানিং একটু দেরিতে করে।

১১-নভেম্বর
যেকোনো সালের এই মাসে বিবাহিতরা নিজের সঙ্গীর চিন্তা ভাবনার ভীষণ ভাবে মর্যাদা দেন। এদের দাম্পত্য জীবনে খুব বড় সমস্যা আসে না। এরা সমস্যাকে মিলিত ভাবে সমাধান করে।

১২-ডিসেম্বর
যেকোনো সালের এই মাসে বিবাহিতরা বর্তমানের থেকে ভবিষ্যৎ নিয়ে বেশি চিন্তা করে। এরা ভালোবাসাকেও যুক্তি দিয়ে বুঝতে চায়। এদের সম্পর্কের মধ্যে আবেগের কোনো স্থান নেই।

Check Also

PhD পাস ফল বিক্রেতা তরুণীর ঝরঝরে ইংরেজি লজ্জায় ফেলবে আপনাকে

একজন সবজি বিক্রেতা এই ভাবেই ঝড়ের গতিতে ইংরেজি বলতে পারেন এমনটা আমরা ভেবে উঠতে পারিনা। ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!