বিশ্বের শেষ প্রান্তে দৈত্যকার গহ্বর পৃথিবী ধ্বংসের ইঙ্গিত?

মস্কো: রাশিয়ার উত্তরাংশের একদম শেষবিন্দুতে এক দৈত্যাকৃতি বিশাল গহ্বরের খোঁজ মিলল। কী কারণে এই গহ্বর তৈরি হয়েছে তা নিয়ে ধোঁয়াশায় গবেষকরা। রাশিয়ার বভেনস্কিকে প্রাকৃতিক গ্যাসের খনির কাছ এই দৈত্যাকৃতির গহ্বরের দেখা মিলেছে। স্থানীয় টিভি চ্যানেলে এই গহ্বরকে ‘পৃথিবীর ধ্বংসের সূচনা’ বলে অভিহিত করা হচ্ছে।

অনেকে এও মনে করছেন, মাটির নিচে কোনও বিস্ফোরণে জন্যও এরকম গহ্বর তৈরি হতে পারে। অত্যুৎসাহীদের দাবি, কোনও উল্কাপিণ্ডের পতনের ফলে সৃষ্টি হয়েছে এই বিশাল গহ্বরের। যদিও বিজ্ঞানীরা এই জল্পনা উড়িয়ে দিয়েছেন।

ক্যামেরায় তোলা ছবিতে দেখা যাচ্ছে, গহ্বরটির ব্যাসার্ধ প্রায় ১০০ মিটার। বৃহস্পতিবার এই গহ্বর থেকে নমুনা সংগ্রহে দুই সদস্যের বিশেষ দল পাঠাচ্ছে সাইবেরিয়ার ‘স্টাডি অফ দ্য আর্কটিক’। পাশাপাশি রাশিয়া অ্যাকাডেমি অফ সায়েন্সেরও এক বিজ্ঞানীও ঘটনাস্থলে যাচ্ছেন।

পোষ্টটা কেমন লেগেছে সংক্ষেপে কমেন্টেস করে জানাবেন৷ T= (Thanks) V= (Very good) E= (Excellent) আপনাদের কমেন্ট দেখলে আমরা ভালো পোষ্ট দিতে উৎসাহ পাই।

Check Also

সাদা না লাল, জানেন কোন ডিম বেশি পুষ্টিকর?

আট থেকে আশি— ডিম প্রায় প্রতি দিনই সব বাড়িতে কম-বেশি আনা হয়। বাড়িতে ছোট শিশু ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *