Saturday , 19 September 2020
[cvct-advance id=20554]

ত্বক ও চুলের এই সমস্যাগুলিতে ম্যাজিকের মতো কাজ করে কর্পূর

পুজোর থালা থেকে গৃহস্থালির টুকিটাকি। কর্পূরের ব্যবহার আমাদের দেশে বহু প্রাচীন। কর্পূর গাছের বিজ্ঞানসম্মত নাম ‘সিনামোনান ক্যাম্ফরা’। ভারত, জাপান, ইন্দোনেশিয়া-সহ এশিয়ার প্রায় সর্বত্রই কর্পূর গাছ দেখা যায়। এই গাছের ছাল থেকেই পাওয়া যায় কর্পূর। উদ্বায়ী কর্পূরের গুণ অশেষ। বাঙালি বাড়িতে পুরনো রীতি ছিল, গ্রীষ্মকালে পানীয় জলে কর্পূর মিশিয়ে রাখা। এতে জল ঠান্ডা থাকত। কর্পূরের প্রভাবে জলের স্বাদগন্ধেও পরিবর্তন আসে।

আসুন দেখে নিই কোন কোন শারীরিক সমস্যায় কর্পূর ম্যাজিকের মতো কাজ করে:

ব্যথা ও ফোলা কমাতে:

আঘাত পাওয়া জায়গা অনেক সময় লাল হয়ে ফুলে থাকে। সেখানে কর্পূর মালিশ করলে দ্রুত উপশম পাওয়া যায়।

চুলকানি ও র‌্যাশে আরাম:

স্পর্শকাতর ত্বকের কারণে অনেকেই চুলকানি ও র‌্যাশের সমস্যায় ভোগেন। সে ক্ষেত্রেও কর্পূর বেশ উপকারী। কর্পূরের তেল জলে মিশিয়ে তারপর হাল্কা করে ক্ষতস্থানে মালিশ করলে তাড়াতাড়ি আরাম পাওয়া যাবে।

ছত্রাকজনিত সমস্যায়:

অনেকেরই নখে ছত্রাকজনিত সংক্রমণ হয়। ওষুধ খাওয়ার পাশাপাশি ঘরোয়া টোটকা হিসেবে এ ক্ষেত্রে কর্পূর খুব কার্যকরী।

একজিমা মোকাবিলায়:

শিশু বা প্রাপ্তবয়স্ক, দু’ক্ষেত্রেই একজিমায় তীব্র প্রদাহ ও যন্ত্রণা হয়। একজিমার সমস্যাতেও কর্পূর খুব কার্যকরী। একজিমার অয়েনমেন্ট ও লোশনের গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হল কর্পূর।

বহু সমস্যার একটাই ঘরোয়া সমাধান–কর্পূর। ছবি: শাটারস্টক

অনিদ্রা দূর করতে:

কর্পূরের গন্ধ ঘুম ডেকে আনতে সাহায্য করে। যাঁরা অনিদ্রা বা ইনসমনিয়ায় ভোগেন, তাঁরা বালিশে কয়েক ফোঁটা কর্পূরের তেল দিয়ে দেখতে পারেন। ঘুমের মাসি, ঘুমের পিসি তাড়াতাড়ি চলেও আসতে পারে।

সর্দি কাশি ও গলার সংক্রমণে:

বাজারচলতি বহু ভেপোরাবেই কর্পূর থাকে। সর্দি হলে ঘরোয়া টোটকা হিসেবে বুকে, পিঠে ও গলায় কর্পূরের তেল মালিশ করে দেখতে পারেন। আরাম পাবেন।

চুলের যত্নে:

মহিলা-পুরুষ নির্বিশেষে যে কারও কাছেই মাথায় কম চুল থাকা দুঃস্বপ্ন। অনেক কারণেই নতুন চুল গজায় না। বাজারচলতি রাসায়নিকের বদলে কর্পূরের তেল ব্যবহার করে দেখতে পারেন। যে তেল মাখেন, তার সঙ্গে কর্পূরের তেল মিশিয়ে ভাল করে স্ক্যাল্পে মালিশ করুন। উপকার বৈ অপকার হবে না।

উকুন বিনাশে:

বাচ্চারা হামেশাই উকুনের সমস্যায় কষ্ট পায়। নারকেল তেলের সঙ্গে কর্পূর গুঁড়ো মিশিয়ে বাচ্চার মাথায় ভাল করে মালিশ করুন। তারপর শ্যাম্পু করিয়ে দিন। সবথেকে ভাল হয়, যদি কর্পূর মেশানো তেল রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে মাখা যায়। কর্পূরের গন্ধে উকুন মরে যায়।

Check Also

মাটির পাত্রে জল পানের উপকারিতা

আগেরকার দিনে মাটির পাত্রে পানি পান ও সংরক্ষণ করা হতে ব্যপক ভাবে। কালের পরিক্রমায় এখন ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!