জেনে নিন গায়ের রঙ ফর্সা করার সবচাইতে সহজ ও কার্যকরী ৩টি উপায়!

গায়ের রঙ ফর্সা করতে কে না চায়? যাদের সুন্দর গায়ের রঙটা ক্রমশ কালচে হয়ে পড়েছে, তাঁদের যেন আফসোসের শেষ নেই। কিন্তু বিউটি পার্লারে রঙ ফর্সা করার ট্রিটমেনটে যে অনেক খরচ! চিন্তা করবেন না, আপনার জন্য বিউটি পার্লার আজ আমরা নিয়ে এলাম ঘরেই! বলতে গেলে প্রায় বিনা খরচেই নিজের গায়ের রঙ ফর্সা করে ফেলতে পারবেন, তাও একেবারে প্রাকৃতিকভাবে কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ছাড়াই!

আলু একটি অসাধারণ উপাদান গায়ের রঙ ফর্সা করার ক্ষেত্রে। আর খুব সস্তা এই উপাদানটি সকলের ঘরেই সর্বদা থাকে।– আলু গ্রেট করে নিন। এই গ্রেট করা আলু চিপে রস বের করে নিন।– এই রস মুখে মাখুন। – শুকিয়ে যাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। তারপর মুখ ধুয়ে নিন।– রোজ মাখতে পারেন মুখে আলুর রস।

এই বিষয়গুলোর উপর ভিডিও বা স্বাস্থ্য বিষয়ক ভিডিও দেখতে চাইলে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি ঠিকানা: –রঙ ফর্সা হয় কাঁচা পেঁপে দিয়েই : হ্যাঁ, কাঁচা পেঁপের মত খুব সস্তা ও সহজলভ্য উপাদানটি আপনার রঙ ফর্সা করতে অত্যন্ত কার্যকর। শুনতে অবাক লাগলেও এটাই সত্যি!

কাঁচা পেঁপে বেঁটে রস করে নিন।– এই রস মুখে লাগিয়ে নিন তুলোর বল দিয়ে।– ২০ মিনিট পর মুখ ধুয়ে ফেলুন। এটাও রোজ করতে পারেন কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার ভয় ছাড়াই! লেবুর রসেই সমাধান : ভাতের পাতে লেবু ছাড়া চলেই না? এবার একে ব্যবহার করুন রূপচর্চাতেও!– তাজা লেবু নিংড়ে রস বেড় করে নিন।

এই লেবুর রস মুখে ও হাতে পায়ে মাখুন। – ১০/১৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। এটা অবশ্যই রাতের বেলায় করুন। কেননা লেবু হচ্ছে প্রাকৃতিক ব্লিচ। তাই লেবু ব্যবহারের পর ৭/৮ ঘণ্টা রোদে না যাওয়াই ভালো। টিপস : ত্বকের ফর্সা রঙ ধরে রাখতে চাইলে রোদে গেলে অবশ্যই সানস্ক্রিন ও ছাতা ব্যবহার করন।

পোষ্টটা কেমন লেগেছে সংক্ষেপে কমেন্টেস করে জানাবেন৷ T= (Thanks) V= (Very good) E= (Excellent) আপনাদের কমেন্ট দেখলে আমরা ভালো পোষ্ট দিতে উৎসাহ পাই।

Check Also

প্রায়ই গলা জ্বলে, চোঁয়া ঢেকুর ওঠে? এ সব উপায়ে ওষুধ ছাড়াই আয়ত্তে আনুন এই সমস্যা

সামান্য মশলাজাতীয় খাবার খেলেই গলা জ্বালা, চোঁয়া ঢেকুর, আর তার পরেই মুঠো মুঠো গ্যাস-অম্বলের ওষুধ ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *