Saturday , 20 July 2019

জানেন ২০৫০ সালে কেমন হবে আমাদের পৃথিবী ? দেখলে চমকে যাবেন…

সব মানুষই নিজের ভবিষ্যৎ জানার জন্য আগ্রহী হয়ে থাকে। প্রত্যেকেই জানতে চায় তার ভবিষ্যৎ কেমন হবে। তাই অনেকে জ্যোতিষের কাছে যায়, কেউবা সাহায্য নেয় বিজ্ঞানের। আজ থেকে ৩১ বছর পর অর্থাৎ ২০৫০ এ আমাদের পৃথিবী কেমন হবে তা নিয়ে সকলেরই কৌতুহলের শেষ নেই। আসুন তাহলে দেখে নেওয়া যাক কেমন হবে ২০৫০ সালের এই পৃথিবী।

১। বৈজ্ঞানিকদের মতে ২০৫০ সালে পৃথিবীর জনসংখ্যা বেড়ে ৯৬০ কোটির বেশি হয়ে যাবে। পৃথিবীতে শহরগুলিতে জনসংখ্যা বাড়বে ৭০% করে। তাছাড়াও আমাদের ভারতবর্ষে অনেক পরিবর্তন ঘটবে।

২। সমুদ্র বিজ্ঞানীরা বলেছেন ২০৫০ সালের মধ্যে পৃথিবীতে জলের উচ্চতা অনেক বেড়ে যাবে। তার ফলে সারা পৃথিবী জুড়ে দুই বার বড় বড় বন্যা হবে। এখনও পর্যন্ত পৃথিবীর জলস্তরের উচ্চতার কারনে ৫টি বড় দ্বীপ জলের নীচে চলে গেছে। আগামী ৩০ বছরের মধ্যে প্রায় ২ লক্ষ দ্বীপ জলের নীচে চলে যাবে।

৩। ২০৫০ সালের মধ্যে ৫০% মানুষের কাছে চাকরি থাকবে না, কারন তখন বেশিরভাগ কোম্পানিতেই রোবট দ্বারা কাজ করানো হবে।

৪। এখন যে ক্যান্সারকে মানুষ এত ভয় করে চলে, ২০৫০ এর মধ্যে এই ব্যাধি আর থাকবেনা। তখন ক্যান্সারের চিকিৎসা শুরু হয়ে যাবে। ৮০ বছর বয়সের কম কোন মানুষ ক্যান্সারে আক্রান্ত হবেনা। ততদিনে ক্যান্সারের মত রোগকে চিরদিনের মত নিঃশেষ করে দেওয়া হবে।

৫। ২০৫০ সালের মধ্যে মায়াপিয়া নামক একটি রোগ মানুষের মধ্যে জেঁকে বসবে। এটা একটা চোখের রোগ। এই রোগের কারনে মানুষের দূরের কোন জিনিস দেখতে অসুবিধা হবে, ঝাপসা দেখাবে। খাওয়া দাওয়া এবং জীবনযাপনের ধরন পরিবর্তনের কারণে এই রোগ দেখা দেবে।

৬। আমরা এখন যে ধরনের টেকনোলজি আমরা ব্যবহার করি ২০৫০ শালে তার চেয়ে অনেক বেশি অ্যাডভান্স ও শক্তিশালী গ্যাজেট ব্যবহার করবো। সেটা মোবাইল হোক বা অন্য কোন ইলেকট্রনিক গ্যাজেট। আর সেগুলোর সাহাজ্যে আমরা ভার্চুয়াল রিয়েলিটি অনুভব করতে পারবো।

৭। ৩১ বছর পর প্লেনে ভ্রমন অনেক বেশি আরামদায়ক হবে। প্লেন গুলি হবে আরও বড় আর অনেক বেশি উন্নত। প্লেনের ভিতর থেকে বাইরের সব দৃশ্য অনেক বড় ও অনেক পরিস্কার ভাবে দেখা যাবে।

৮। সামাজিকতার দিক থেকে মানুষের মধ্যে ডিভোর্সের পরিমান অনেক গুন বেড়ে যাবে। বন্ধুদের সাথে বা আত্মীয়দের সাথে গল্প আড্ডা প্রায় বন্ধই হয়ে যাবে। সবার সাথে সোশ্যাল মিডিয়ায় যোগাযোগ থাকবে।

আপনার কাছে পোষ্ট টি কেমন লেগেছে সংক্ষেপে কমেন্টেস করে জানাবেন ৷ T=(Thanks) V= (Very good) E= (Excellent) আপনাদের কমেন্ট দেখলে আরো ভালো ভালো পোষ্ট দিতে উৎসাহ পাই।

Check Also

বাড়িতেই বানিয়ে ফেলুন ‘মিনারেল ওয়াটার’, রইল সহজ উপায়

জল তেষ্টার তো আর সময়-অসময় নেই! কিন্তু, বাড়ির বাইরে জল খেতে গেলে সাবধানতা বজায় রাখতেই ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *