এসব কাপে চা খেলে ক্যান্সার অবসম্ভাবী! দেখেনিন কোন কাপ সেগুলো…

উফ, সকালে উঠে এক কাপ চায়ের মাহাত্মই আলাদা। চায়ের কাপ চুমুক দিয়ে সারাদিনের মেজাজ তৈরি করা যায়। আবার চা প্রিয় মানুষদের তো সকালের চায়ে শুধু মন ভরে না। অফিসে বেরিয়ে কাজের ফাঁকে চা কিংবা রাস্তায় চা পান একটা অভ্যাস বলা যেতে পারে। অভ্যাসটি খারাপ নয়। অত্যধিক হারে চা না খেলেই হল। এত অবধি তো ঠিকই আছে, কিন্তু প্রশ্নটি হল চা আপনি খাচ্ছেন কিসে?

এখানেই কিন্তু চিকিতসকরা লাল আলো দেখাচ্ছেন। মাটির ভাঁড়ে চা খেলে আপনি নিরাপদেই আছেন কিন্তু কয়েকবছর যাবত রাস্তার দোকানে প্লাস্টিকের কাপে চা দেওয়ার প্রচল শুরু হয়েছে আর তাতেই বাধ সাধছেন চিকিতসকরা। প্লাস্টিকের চায়ের কাপে যে আমাদের বিপদ ঘনিয়ে আসছে এমনটাই জানাচ্ছেন চিকিত্সকরা এবং ‘আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অব মেডিসিন’। বিশেষ করে ভারতে প্লাস্টিকের ব্যবহার মারাত্মক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। যা ক্যান্সারের অন্যতম কারণ।

সম্প্রতি একটি সমীক্ষায় ক্যন্সার বিস্তারের বিচারে প্রথমে চিন, দ্বিতীয় আমেরিকা ও ভারত তৃতীয় স্থানে রয়েছে। আর প্রতিবছর সেই ক্যান্সার আক্রান্তের সংখ্যা লাগাতার বৃদ্ধি পাচ্ছে। এবং এক গবেষনায় ভবিষ্যতে প্রতি পরিবার থেকে একটি করে ক্যান্সার রোগী পাওয়ার সম্ভাবনার কথাও জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। প্লাস্টিকের যথেচ্ছ ব্যবারকেই যার অন্যতম কারণ হিসেবে দায়ী করছেন তাঁরা। বোতল থেকে চায়ের কাপ সমস্ত ক্ষেত্রেই প্লাস্টিকের ব্যবহার যেন আভিজাত্য প্রমানের অঙ্গীকার হয়ে উঠেছে। শুধু রাস্তার দোকান কেন শহরের নামী-দামী চা ও কফি শপেও প্লাস্টিকের কাপের ব্যবহার রয়েছে। যেখান থেকে পেটের অসুখ হচ্ছে। তবে সে সবের চেয়েও ক্ষতিকর সাধারণ সস্তা প্লাস্টিকের চায়ের কাপ। এমনটাই বলছেন বিজ্ঞানীরা।

তবে সেটি কিভাবে তারও প্রমান দিয়েছেন আমেরিকান ইন্টারন্যাশানাল স্কুল অব মেডিসিন-এর গবেষকরা। গবেষকরা বলছেন, চায়ের কাপ মাইক্রেপ্লাস্টিক দিয়েতৈরি হয়। যেখানে শরীরের বিষ টক্সিক উপাদান থাকে। যা ক্যান্সারের জন্য বিশেষ ভাবে দায়ী। বিশেষ করে গরম চায়ের সংস্পর্শে এসে তা সহজেই পানীয়র সঙ্গে মিশে যায়। মহিলাদের ইস্ট্রোজেন-এর ক্ষমতা হ্রাস পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে পুরুষদের শুক্রানুর সংখায কমিয়ে দেয় প্লাস্টিক কাপে চা খাওয়া। পাশাপাশি সস্তা প্লাস্টিকের কাপ তৈরি হওয়ার সময়ে পলিভিনাইল ক্লোরাইড (পিভিসি)-কে নরম করা হয় থ্যালেট ব্যবহার করে। যা শ্বাসকষ্ট, স্তন ক্যন্সারের জন্য বিশেষ ভাবে দায়ী।

পোষ্টটা কেমন লেগেছে সংক্ষেপে কমেন্টেস করে জানাবেন৷ T= (Thanks) V= (Very good) E= (Excellent) আপনাদের কমেন্ট দেখলে আমরা ভালো পোষ্ট দিতে উৎসাহ পাই।

Check Also

গুড় ও ছোলার অসাধারন এই ৮টি গুন সম্পর্কে জানলে আজ থেকেই খাবেন আপনিও..

সকালে ব্রেকফাস্টে গুড় ও ছোলা খাওয়ার কথা শহরের মানুষরা ভাবতেও পারেন না। কিন্তু শরীরের জন্য ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *