এটিএম ব্যবহার করে অজান্তেই ডেকে আনছেন বিপদ, জেনে নিন ১৩টি সতর্কতা

টাকা তোলার সময়, তাড়াহুড়োর মধ্যেই এটিএমে গিয়ে, নিজের অজান্তেই এই ভুল গুলো করেন অনেকে। দেখে নিন আপনিও এই ভুলগুলো করছেন কি না! বাড়িতে টাকা রাখার থেকে ব্যাংকে টাকা রাখাই অনেক নিরাপদ। দরকার পড়লে এটিএম তো আছেই।

কিন্তু এটিএম থেকে টাকা তোলার সময়ও কিছু সাবধানতা অবলম্বন করা উচিত। এটিএমে প্রায়ই চুরি-ডাকাতির ঘটনা ঘটে। তাই সব রকমের নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে, এই জিনিসগুলি মনে চলা উচিত।

• এটিএমে ঢোকার আগে, চারপাশের পরিবেশ দেখে নেওয়া উচিত। খুব ফাঁকা জায়গায় না গিয়ে জনবহুল এলাকার এটিএমে যান।

• এটিএম ব্যবহার করতে সমস্যা হলে সিকিউরিটির সঙ্গে যোগাযোগ করুন। কোনও অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তির থেকে সাহায্য নেবেন না।

• এটিএম থেকে টাকা তোলার সময় স্ক্রিনে আসা সমস্ত কিছু ভাল করে পড়ুন। কোনও সমস্যা হলে সিকিউরিটি বা ব্যাংকে যোগাযোগ করুন।

• এটিএম কার্ড ঢুকে যাওয়ার পর আর না বেরলে সঙ্গে সঙ্গে ব্যাংকে ফোন করে জানান।

• এটিএম মেশিনটিকে দেখতে অন্যরকম হলে, বা যদি অন্যান্য অপশন থাকে তাহলে সেই এটিএম এড়িয়ে যান।

• এটিএম মেশিনে যদি একাধিক বার এটিএম পিন কোড দিতে বলা হয়, তাহলে সেই এটিএম থেকে টাকা তুলবেন না।

• এটিএমে পিন দেওয়ার সময়, যাতে কেউ পিন নম্বর দেখে না ফেলে সে দিকে খেয়াল রাখুন।

• যদি এটিএম থেকে বেরনোর সময় কেউ আপনার পিছু নেয়, পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করুন।

• এটিএমে খুব বেশি দামি গয়না, দামি জিনিস এবং জরুরি কাগজপত্র নিয়ে ঢুকবেন না।

• এটিএমে টাকা বেরনোর সঙ্গে সঙ্গে টাকা গুনে নিন। রাস্তায় বেরিয়ে টাকা গুনবেন না।

• গাড়ি করে এটিএমে টাকা তুলতে গেলে, এটিএম কাউন্টারের সামনেই গাড়িটি রাখুন। অবশ্যই গাড়ির ইঞ্জিন অন রাখুন।

• খেয়াল রাখুন আপনার টাকা তোলার সময় যেন কোনও ভাবেই অন্য কেউ কাউন্টারে ঢুকে না পড়েন।

• যে কাউন্টারে সিকিউরিটি আছে, সেই কাউন্টারেই যাওয়ার চেষ্টা করুন।

পোষ্টটা কেমন লেগেছে সংক্ষেপে কমেন্টেস করে জানাবেন৷ T= (Thanks) V= (Very good) E= (Excellent) আপনাদের কমেন্ট দেখলে আমরা ভালো পোষ্ট দিতে উৎসাহ পাই।

Check Also

চাকরি খোয়ালেন জোম্যাটো ‘বয়’, বড় চোরদের না ধরে লঘু পাপে গুরু শাস্তি কেন

বিশ্বাসঘাতকের শাস্তি বাঞ্ছনীয়। কিন্তু এই ঘটনা লঘু পাপে গুরু দণ্ড নয় কি? এঁটো খাবারই যদি ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *