Tuesday , 15 December 2020
[cvct-advance id=20554]

এক ধাক্কায় কমে গেল রান্নার গ্যাসের দাম! স্বস্থির নিঃশ্বাস ফেলল মধ্যবিত্তরা

এক ধাক্কায় কমে গেল রান্নার গ্যাসের দাম! স্বস্থির নিঃশ্বাস ফেলল মধ্যবিত্তরা – কমলো ভর্তুকিহীন এলপিজি গ্যাসের দাম। ১ মে থেকে চারটি শহরে কমলো এলপিজি গ্যাসের দাম। ইন্ডিয়ান অয়েলের ওয়েবসাইট থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী,

ওই চারটি শহরে এই নতুন দাম বরাদ্দ হয়েছে। আগে কলকাতায় এক একটি রান্নার গ্যাসের দাম ছিল ৭৭৪.৫০ টাকা। কিন্তু প্রায় ১৯০ টাকা কমে এখন সেই দাম হয়েছে ৫৮৪.৫০ টাকা। দিল্লিতে ভর্তুকিহীন এলপিজি গ্যাস সিলিন্ডারের দাম ছিল ৭৪৪ টাকা।

এখন সেই দাম কমে হয়েছে ৫৮১.৫০ টাকা৷ চেন্নাইয়ে ৭৬১.৫০ টাকা দামের গ্যাস সিলিন্ডারের দাম কমে হয়েছে ৫৬৯.৫০ টাকা। মুম্বইয়ে সিলিন্ডারের দাম ছিল ৭১৪.৫০ টাকা। এখন সেখানে সিলিন্ডারের নতুন দাম হল ৫৭৯ টাকা। মধ্যবিত্তের হেঁসেলে স্বস্তি দিয়ে কলকাতায় রান্নার গ্যাসের দাম সিলিন্ডার পিছু কমেছে ১৯০ টাকা করে।

১৪.২ কেজি ওজনের রান্নার গ্যাস সিলিন্ডারের দাম কমে দাঁড়ালো ৫৮৪.৫০ টাকা। জেলায় জেলায় মিলছে ৫৯৪ টাকায়। অন্যদিকে ১৯ কেজি ওজনের বাণিজ্যিক রান্নার গ্যাসের সিলিন্ডারের দাম কমেছে ২৬২.৫০ টাকা। বাণিজ্যিক ক্ষেত্রে ব্যবহৃত এই রান্নার গ্যাসের দাম দাঁড়ালো সিলিন্ডার প্রতি ১০৮৬ টাকা।

প্রতিদিন জ্যাকপট হিট! 1xbet গ্যাস সিলিন্ডারের দাম কমা বাড়ার পিছনে রয়েছে বিদেশি মুদ্রার এক্সচেঞ্জ রেটের হিসেব ও আন্তর্জাতিক বেঞ্চমার্ক দর। সেই অনুযায়ীই এলপিজি গ্যাসের দাম নির্ধারণ করা হয়। আর যেহেতু এলপিজি গ্যাসের এই মূল্য নির্ধারণ সংক্রান্ত বিষয়টি

আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে আলোচিত বিভিন্ন সময়ে এলপিজি গ্যাসের দাম তাই কমে, আবার কখনো অস্বাভাবিকভাবে দাম বেড়ে যায়। আর গ্যাসের এইভাবে দাম কমা বাড়ার জন্য মানুষ কখনো অস্বস্তিতে পড়েন আবার কখনো স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেন।

আপনার কাছে পোষ্ট টি কেমন লেগেছে সংক্ষেপে কমেন্টেস করে জানাবেন ৷ T=(Thanks) V= (Very good) E= (Excellent) আপনাদের কমেন্ট দেখলে আরো ভালো ভালো পোষ্ট দিতে উৎসাহ পাই।

Check Also

মধ্যবিত্তদের জন্য খুশির খরব! মাত্র ১০ হাজার বিনিয়োগ করেই হতে পারেন ১৬ লক্ষ টাকা!

মধ্যবিত্তদের জন্য খুশির খরব! মাত্র ১০ হাজার বিনিয়োগ করেই হতে পারেন ১৬ লক্ষ টাকা! – ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You cannot copy content of this page