একা নয়, দল বেঁধে গান করুন! কী ফল পাবেন জেনে নিন

গান অপছন্দ করেন, এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া খুব কঠিন। গান এমন একটি জিনিস যা মন খারাপ করা ঘটনা বা আনন্দের মুহূর্ত— সব সময়েই আপনার সঙ্গী হতে পারে। এবার গান সম্পর্কে উঠে এল এক অজানা তথ্য। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, একা গান গাওয়ার থেকেও সমবেতভাবে বা দল বেঁধে গান গাইলে মানসিক ভাবে আপনি আরও সুস্থ থাকতে পারবেন।

ইংল্যান্ডের ইউনিভার্সিটি অফ ইস্ট অ্যাংগিলার গবেষকরা জানিয়েছেন, যাঁরা প্রায়ই একসঙ্গে অনেকে মিলে গান করেন, তাঁরা সহজে ডিপ্রেশন, অ্যাংজাইটি থেকে মুক্তি পেতে পারেন। এই গবেষণার রিপোর্টটি বিএমজে জার্নাল মেডিক্যাল হিউম্যানিটিজ-এ প্রকাশিত হয়।

গবেষকরা জানিয়েছেন, এক সঙ্গে গান গাইলে পরষ্পরের সঙ্গে সুসম্পর্কও বজায় থাকে। সামাজিক সম্পর্কগুলো ভাল থাকলে মানুষের মনও ভাল থাকে।

এই গবেষণাটির আগে বেশ কয়েকজনের উপরে সমীক্ষা চালান গবেষকরা। সমীক্ষাটির নাম ছিল— ‘সিঙ্গ ইয়োর হার্ট আউট’ (এসওয়াইএইচও), যার অর্থ মন খুলে গান করুন।

সমাজের বিভিন্ন মানুষ ছাড়াও যাঁরা মানসিক ভাবে বিপর্যস্ত, তাঁদেরকেও এই সমীক্ষার অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছিল। প্রতি সপ্তাহে এঁদের জন্য একটি করে গানের ওয়ার্কশপের ব্যবস্থা করা হয়। যাঁরা মানসিক ভাবে বিপর্যস্ত, তাঁদের মধ্যে ধীরে ধীরে পরিবর্তন লক্ষ্য করতে থাকেন গবেষকরা।

গবেষকদের মধ্যে টম শেক্সপিয়ার জানান, যাঁরা এই প্রোজেক্টে অংশ নিয়েছিলেন, তাঁরা মানসিক সমস্যা থেকে ধীরে ধীরে ছাড় পাচ্ছিলেন। এমনকী অংশগ্রহণকারীরাও জানান যে, দল বেঁধে গান গাওয়া তাঁদের সাহায্য করেছে।

পোষ্টটা কেমন লেগেছে সংক্ষেপে কমেন্টেস করে জানাবেন৷ T= (Thanks) V= (Very good) E= (Excellent) আপনাদের কমেন্ট দেখলে আমরা ভালো পোষ্ট দিতে উৎসাহ পাই।

Check Also

পাঁকা পেঁপে খাওয়ার ১০টি উপকারিতা

বিশ্বের জনপ্রিয় ফলগুলোর মধ্যে একটি পেঁপে। স্বাদ ও গুনাগুণের কারণেই মানুষের কাছে এর এতো কদর। ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *