Monday , 14 October 2019

আগামী প্রজন্মের কথা ভেবে এবার রান্না গ্যাসের উপর নির্ভরশীলতা কমিয়ে সৌর শক্তির ওপর জোর দিলেন মোদি সরকার…

যেভাবে দিন দিন দেশে জনসংখ্যা বেড়েই চলেছে তাতে কাঁচামালের একটা সমাধান না বের করলে পরবর্তী ভবিষ্যতে দেশের জনগণকে একটা সমস্যায় পড়তে হবে।আরো বলে দি গ্যাস-তেল কয়লা ইত্যাদি ভরসায় মানুষ বেশিদিন নিজেদের জীবন চালাতে সক্ষম হবে না। তাই এখন এবার তার বিকল্প পদ্ধতি বর্তমানে যা সৌরশক্তি নামে পরিচিত তার ওপর নির্ভরশীলতা বাড়িয়ে তোলার জন্য কাজ শুরু করে দিয়েছে সারা বিশ্ব।

তাছাড়া ভারত গ্রীষ্মকালীন দেশ হওয়ায় এখানে সৌরশক্তিকে দারুণভাবে কাজে লাগানো যাওয়া সম্ভব হবে।আর ভারত সরকার এবার সারা দেশ জুড়ে গ্রাম ও শহরে নতুন ধরনের সৌরচুলা আনতে চলেছে। এর আওতায় ইন্ডিয়ান অয়েল করপরেশন ইনডোর শোলার রান্না ব্যবস্থার একটি পাইলট পরীক্ষা শুরু করেছে।আর এর অধীনে সূর্যের তাপ সংরক্ষণ করা হবে এবং প্রয়োজনে পড়লে সেই তাপ ব্যবহার করে খাবার রান্না করা যেতে পারে বলে জানানো হচ্ছে।

এই প্রকল্পটি শুরু করেছেন ইন্ডিয়ান অয়েল অ্যান্ড ডি পরিচালক এসএসভি রামকুমার। এই পাইলট পরীক্ষার প্রকল্পটির লেহে শুরু করা হয়েছে। খুব স্বল্প মূল্যের মধ্যে শহরে রান্নার যে পদ্ধতি তাতে বিকাশের জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আবেদন থেকে অনুপ্রাণিত হয়েই ইন্ডিয়ান অয়েল আমেরিকান স্টেটাস সান বালতি সিস্টেমের সাথে একটি চুক্তি করেছে। আর এই আমেরিকান সংস্থাটি সৌরশক্তি ভিত্তিক পণ্যগুলি তে কাজ করে।

এই চুক্তির অধীনে একটি সহজ রান্না ব্যবস্থা পদ্ধতিকে তৈরি করা হবে যেখানে সিস্টেমটি বাজারে বিক্রি এবং বিকশিত হবে। এই সৌরশক্তি প্রস্তাবিত সিস্টেমের অধীনে তাপ শক্তিকে সংরক্ষণ করা সম্ভব হবে এর জন্য একটি বহনযোগ্য সূর্য বালটি ব্যবহার করা হবে। সান বালটি দিয়ে ঘরের ভিতরে খাবার তৈরি করা যায় একটি সান ব্যাকেট পরিবারের চারজন ব্যক্তির জন্য যথেষ্ট তবে জানিয়ে এই সৌর শক্তির ওপর নির্ভরশীল হলে একদিকে যেমন দেশে খরচ করবে তেমন প্রকৃতি দূষণ আরো অনেকটা কমে যাবে। এর ফল স্বরূপ বলা যেতে পারে জলবায়ু মানুষের স্বাস্থ্য সব দিক থেকেই উন্নতি সাধন হবে।

Check Also

বাঙালি পরিচয়ের আত্মার সঙ্গে জড়িয়ে থাকে সিডনির পুজো.

দেবী দুর্গা দুর্গতিনাশিনী। দশভূজা মহিয়সী, তেজস্বিনী। তাঁর রূপ,শিক্ষা,শক্তি অপরিসীম। তিনি অজেয়, অপার। বিশ্বব্রহ্মাণ্ডের আদি জননী। ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *